Main Menu

পুরুষ সেজে গৃহবধূকে বিয়ে করলেন এক সন্তানের জননী!

বিদেশবার্তা২৪ ডেস্ক:
এক সন্তানের জননী ফাহিমা আক্তার (ছদ্মনাম)। বয়স ২২। সাত মাস আগেও তিনি স্বামীর ঘরে ছিলেন। স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ঠাঁই হয় বাবার বাড়িতে। হঠাৎ বদলে যান তিনি। পুরুষের মতো বেশভূষা ধারণ করেন। দাবি করেন- নারী থেকে পুরুষে রূপান্তরিত হয়েছেন। নিজের নাম বদলে রাখেন ফাহিম।

এরপর ১৯ বছর বয়সী এক গৃহবধূর সঙ্গে গড়ে তোলেন প্রেমের সম্পর্ক। ওই গৃহবধূ সম্পর্কে তার চাচি। ফাহিমের সঙ্গে প্রেম হয়ে যাওয়ায় ১০ দিন আগে স্বামীর ঘর ছাড়েন চাচি। তার সঙ্গে পাড়ি জমান ঢাকায়। গত বৃহস্পতিবার (২৬ মে) রাতে তারা বাড়ি ফেরার পর এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার গোগ্রাম ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে ফাহিম নামধারী তরুণীর পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করা হয়।

স্বজনরা জানিয়েছেন, তারা দুজনে ঢাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে উঠেছিলেন। ঢাকায় গিয়ে বিয়ে করার দাবিও করেছেন তারা।

এ বিষয়ে গোগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মজিবর রহমান বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। এক মেয়ে ছেলে সেজে দূরসম্পর্কের চাচির সঙ্গে প্রতারণা করেছে। আমি এখন ঢাকায় আছি। এর বেশি কিছু আমি বলতে পারব না।

গোদাগাড়ী মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, জিডি থাকায় দুই তরুণীকে শুক্রবার (২৭ মে) হেফাজতে নিয়ে জেরা করেছে পুলিশ। এক তরুণী নিজেকে পুরুষ দাবি করছিলেন। সেটি আসলে প্রতারণা। তার সঙ্গে ঘর ছেড়ে যাওয়া তরুণী বিষয়টি টের পাননি। এ নিয়ে তার অভিযোগও নেই।

আবার তারা দুজনেই ঢাকায় গিয়ে বিয়ের দাবি করেন। কিন্তু বিয়ের কোনো কাগজ দেখাতে পারেননি। এদের সম্পর্ক কোনো আইনের মধ্যেও পড়ে না। আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাদের পরিবারের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে বলে ওসি জানান।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.