Main Menu

সিলেটে এলপিজি সিলিন্ডারের দোকানের আগুন নিয়ন্ত্রণে

নিউজ ডেস্ক:
সিলেটের দক্ষিণ সুরমার বাবনা পয়েন্টে একটি এলপিজি সিলিন্ডারের দোকানে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে। সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টার দিকে এ অগুন লাগে। মুহুর্তে দোকানটি এবং পাশের একটি বাসায় দাউ দাউ করে জ্বলে ওঠে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৫টি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৪৫ মিনিট চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। ততক্ষণে ওই দোকান এবং এর পিছনের বাসার সব সব মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তবে অগ্নিকাণ্ডে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাত ১০টার দিকে বাবনা পয়েন্টের একটি এলপিজি সিলিন্ডারের দোকানে আগুন লাগে। অনেকে বলছেন এক সিলিন্ডার থেকে আরেক সিলিন্ডারে গ্যাস নিতে গিয়ে এই আগুনের সূত্রপাত। আবার কেউ কেউ বলছেন বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগে। তবে এ রিপোর্ট লেখা রাত (সোয়া ১১টা) পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিস বা পুলিশের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এদিকে, আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে এর লেলিহান শিখা আকাশছোঁয়ার চেষ্টা করে এবং আশপাশে আগুন ছড়িয়ে পড়তে থাকে। খবর পেয়ে দক্ষিণ সুরমা ও কোতোয়ালি থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই সিলেট ফায়ার সার্ভিসের দক্ষিণ সুরমা স্টেশন এবং তালতলা স্টেশনের ৩টি টিম এসে আগুন নেভানো শুরু করে। পরে আরও দুটি টিম তাদের সঙ্গে এসে যোগ দেয়।

ফায়ার সার্ভিসের রিজার্ভ পানি ছাড়াও ঘটনাস্থলের পার্শ্ববর্তী সুরমা নদী থেকে পাইপ দিয়ে পানি নিয়ে এসে আগুন নেভাতে চেষ্টা চালান কর্মীরা। ৪৫ মিনিটের চেষ্টায় সেই ভয়াবহ নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে সক্ষম হয় ফায়ার সার্ভিস। পুলিশ ও স্থানীয় জনতা এসময় ব্যাপক সহযোগিতা করেন ফায়ার সার্ভিসকে।

দক্ষিণ সুরমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল হাসান তালুকদার বলেন, পুলিশের সহযোগিতায় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আধা ঘণ্টার বেশি সময় চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসেন। তাৎক্ষণিকভাবে আগুন কারণ ও এতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। একটু সময় লাগবে।

তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে জানান ওসি কামরুল হাসান।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.