Main Menu

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারের সিন্ডিকেট বন্ধে যে পরামর্শ

নিউজ ডেস্ক:
মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারের সিন্ডিকেট বন্ধে যে পরামর্শ।
সিন্ডিকেট চক্রের অপতৎপরতার কারণেই মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার বার বার বন্ধ হয় এবং বিদেশগামী কর্মীদের অভিবাসন ব্যয় দিন দিন বাড়ছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সির (বায়রা) সাবেক নেতৃবৃন্দ।

শনিবার (১৩ আগস্ট) রাতে বিজয়নগরস্থ একটি হোটেলে সম্মিলিত সমন্বয় ফ্রন্ট বায়রা আয়োজিত নির্বাচনী মতবিনিময় সভায় বায়রার সাবেক নেতৃবৃন্দ।

বায়রা নেতারা বলেন, মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারের সিন্ডিকেট চক্রকে চিরতরে বন্ধ করার এখনই সময়। অভিবাসন ব্যয় সহনীয় পর্যায়ে কমিয়ে আনা এবং সকল বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সীকে কর্মী প্রেরণের সুযোগ নিশ্চিতকরণে অনতিবিলম্বে সিন্ডিকেটের অপতৎপরতা বন্ধ করতে হবে। একই সাথে মানবপাচার আইনের ধারা সংশোধন করে বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সীর মালিকদের সাংবিধানিক অধিকার নিশ্চিত করার জোর দেন তারা।

তারা বলেন, ঢাকাস্থ সৌদি দূতাবাসে রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোর তালিকাভুক্তি নিশ্চিত করতে সরকারকে কার্যকরী উদ্যোগ নিতে হবে। আসন্ন বায়রা দ্বি বার্ষিক নির্বাচনে শ্রমবাজারের দুর্বৃত্ত সিন্ডিকেট চক্রকে ব্যালটের মাধ্যমে প্রতিহত করতে হবে।

হজ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) এর সাবেক সভাপতি জামাল উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সম্মিলিত সমন্বয় ফ্রন্ট বায়রার প্যানেল প্রধান ড. মোহাম্মদ ফারুক। সংগঠনের মহাসচিব মোস্তফা মাহমুদের সঞ্চালনায় এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বায়রার সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি রিয়াজ উল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজ মিয়া, গোলাম মোস্তফা বাবুল, ড. জে এইচ গাজী,কৃষক লীগের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জসিম উদ্দিন, ফারাহ আঞ্জুমান বারী, নাজির আহমেদ, রেদওয়ান খান বোরহান, মীর বরকত উল্লাহ সুমন, জামালা হোসেন, সাইফুল ইসলাম, শহিদুল হক মফিজ উদ্দিন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.