Main Menu

বিদ্যুতের ভেলকিবাজীতে অতিষ্ঠ মানুষ

ডেস্ক রিপোর্ট :

সিলেটজুড়ে বইছে তাপপ্রবাহ। কয়েকদিন থেকে অসহনীয় গরম অব্যাহত আছে সিলেটে। সোমবার দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা সিলেটে ৩৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ভ্যাপসা গরমের সঙ্গে রাতভর বিদ্যুৎহীনতার কারণে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে সিলেটের বাসিন্দাদের।

সিলেটে বিদ্যুতের ভেলকিবাজীতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন সাধারণ মানুষ। প্রতিদিন লোড শেডিংয়ে ভোগান্তির মধ্যে রয়েছেন জনসাধারণ। জ্বালানি সাশ্রয়ের পরিকল্পনায় সরকারের সূচি করে লোডশেডিংয়ের পরিকল্পনায় ঘোষণা ছিল দিনে এক ঘণ্টা করে বন্ধ থাকবে বিদ্যুৎ। কিন্তু প্রথম দিন থেকেই বিদ্যুতের যাওয়া-আসা ছিল এর চেয়ে বেশি। সরকারের এমন সিদ্ধান্ত সিলেটে প্রথম দিন থেকেই মানা হচ্ছে না। কোথাও কোথাও ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা বিদ্যুৎ না থাকার তথ্যও জানা যায়। এতে করে ভোগান্তির মধ্যে সময় পার করছেন সিলেটবাসী। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে সংশ্লিষ্টদের কাছে দাবি জানিয়েছেন ভোক্তভোগীরা।

তবে কর্তৃপক্ষ বলছে, চাহিদার তুলনায় বিদ্যুৎ কম পরিমাণ পাওয়ায় ঘাটতি বিদ্যুৎ দিয়ে সমন্বয় করতেই অতিরিক্ত লোডশেডিং করতে হয়।

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড সিলেটের দায়িত্বশীলরা জানান, সিলেটে প্রতিদিন দুপুরে যেখানে ১৮০-১৯০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের প্রয়োজন হয়। অথচ এই মুহূর্তে সেই জায়গায় আমরা পাচ্ছি ১৩০-১৪০ মেগাওয়াট। তখনই তো আমাদের লোডশেডিংটা হয়ে যাচ্ছে ৪০-৫০ মেগাওয়াট। এই ৪০-৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎটা প্রতি ঘণ্টায় ঘণ্টায় সাশ্রয় হচ্ছে। এটা ব্যবহারের উপর নির্ভর করে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.