Main Menu

হজের জন্য টাকা জমা দিয়ে মারা গেলে যা করতে হবে

ধর্ম ডেস্ক:
আমাদের এক আত্মীয় হজে যাওয়ার জন্য হজ এজেন্সিতে টাকা জমা দেন। কিন্তু গত সপ্তাহে তিনি হঠাৎ স্ট্রোক করে ইন্তেকাল করেন। কিন্তু তিনি হঠাৎ মারা যাওয়ায় মৃত্যুর পূর্বে বদলি হজের ওসিয়ত করে যেতে পারেননি।

এখন জানার বিষয় হলো- এজেন্সিতে জমা দেওয়া ওই টাকা কি তার মিরাসের অন্তভুর্ক্ত হবে, নাকি ওই টাকা দিয়ে কাউকে বদলি হজ করিয়ে দিতে হবে। একটু জানানোর অনুরোধ।

এই প্রশ্নের উত্তর হলো- প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে তিনি যেহেতু নিজে হজ করে যেতে পারেননি তাই এজেন্সি থেকে যদি ওই টাকা ওঠানো যায়— তাহলে তা মিরাসি (উত্তরাধিকার) সম্পত্তি হিসেবে গণ্য হবে। তবে জেনে রাখা দরকার, হজ গুরুত্বপূর্ণ ফরয ইবাদত। কেউ জীবদ্দশায় তা আদায় করতে না পারলে বদলি হজের অসিয়ত করে যেতে হয়, লোকটি তা করতে পারেনি। তাই তার ওয়ারিসগণের উচিত তার পক্ষ থেকে বদলি হজ করিয়ে দেওয়া।

বুরাইদা (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে এসেছে, আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর কাছে এক নারী এসে বলল, আমার মা মারা গিয়েছেন, কিন্তু তিনি হজ আদায় করে যেতে পারেননি। আমি কি তার পক্ষ থেকে হজ আদায় করব? তিনি বললেন- হ্যাঁ, তুমি তার পক্ষ থেকে হজ আদায় করো।’ (তিরমিজি, হাদিস : ৯২৯)
অতএব ওয়ারিশগণের উচিত লোকটির পক্ষ থেকে কাউকে বদলি হজে পাঠানো। তবে যেহেতু ওই ব্যক্তি হজের অসিয়ত করে যাননি, তাই তার মিরাসি সম্পত্তি থেকে হজের খরচ নিতে হলে— সকল ওয়ারিশের স্বতঃস্ফূর্ত সমর্থন লাগবে। আর কোনো নাবালেগ ওয়ারিশ থাকলে তার অংশ থেকে নেওয়া যাবে না। কারণ, লোকটির মৃত্যুর পর ওই সম্পত্তিগুলো ওয়ারিশদের মালিকানায় এসে গেছে।

তথ্যসূত্র : বাদায়েউস সানায়ি : ২/৪৬৯; ফাতাওয়া খানিয়া : ১/৩০৮; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া : ৩/৬৫৯; গুনইয়াতুন নাসিক, পৃষ্ঠা : ৩২২

প্রশ্নটি করেছেন : মুহাম্মদ রাকিব উদ্দিন, বরিশাল






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.