Main Menu

তাহিরপুরে পুলিশের আঙ্গুল কামড়ে পালিয়ে যাওয়া যুবক গ্রেফতার

নিউজ ডেস্ক:
রেজিষ্ট্রেশান বিহিন মোটরসাইকেলসহ আটকের পর হাতের আঙ্গুল কামড়ে পুলিশ কনস্টেবলকে আহত করে পালিয়ে আসা সেই পলাতক আসামি সুলতানকে সীমান্ত থেকে ফের গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে তাকে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানা থেকে নেত্রকোনার কলমাকান্দা থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করা হয়।

গ্রেফতার সুলতান মিয়া সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের নাগরপুর গ্রামের বাদশা মিয়ার ছেলে।

শুক্রবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেন সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশের মিডিয়া সেল।

নেত্রকোনার কলমাকান্দা থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ খান যুগান্তরকে জানান, কলমাকান্দা থানার বিশরপাশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের একটি টহল দল গেল মঙ্গলবার দুপুরে পাঁচ গাঁও সীমান্ত সড়কে সন্দেহভাজন মোটারসাইকেল চালক ও আরোহিদের তল্লাশী চালায়। ওই দিন সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের নাগরপুর গ্রামের সুলতান মিয়াকে রেজিস্ট্রেশান বিহিন একটি ১০০ সিসি মোটারসাইকেল সহ আটক করে পুলিশ।

তল্লাশী টিমে থাকা সাখাওয়াত হোসেন নামে এক পুলিশ কনস্টেবলের হাতের আঙ্গুল কামড়ে কৌশলে পালিয়ে যায় সুলতান।

এ ঘটনায় বিশর পাশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই মো.মোক্তার হোসেন বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার সুলতানকে পলাতক আসামি দেখিয়ে থানায় মামলা করেন।

সুলতানকে গ্রেফতারে সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশের সহযোগিতা চাওয়া হলে তাহিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) মো. সোহেল রানা সীমান্তের বাঁশতলা গ্রামে নিকট আত্বীয়ের বাড়িতে আত্বগোপনে থাকা সুলতানকে ফের শুক্রবার ভোরে গ্রেফতার করেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.