Main Menu

এমসির ছাত্রী হোস্টেলে তরুণীর লাশ: ‘রহস্য’ মোবাইল ফোনে!

নিউজ ডেস্ক:
সিলেটের মুরারি চাঁদ (এমসি) কলেজের নতুন ছাত্রী হোস্টেল থেকে স্মৃতি রানী দাস (২০) নামের এক ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে- স্মৃতি রানী আত্মহত্যা করেছেন।

তবে আত্মহননের কারণ কী- সেটি এখনও বলতে পারছে না পুলিশ। পুলিশের বক্তব্য- স্মৃতি রানীর মোবাইল ফোন এ রহস্যের সমাধান করতে পারে। তবে সেটি লক করা। লক খোলার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

নগরীর বালুচর ও টিলাগড়ের মধ্যবর্তী স্থানে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে যাওয়ার রাস্তার মুখে এমসি কলেজের নতুন ছাত্রী হোস্টেল। বুধবার (২৫ মে) সকাল ১০টার দিকে এ হোস্টেলের চারতলার একটি কক্ষ থেকে স্মৃতি রানি দাসের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি এমসি কলেজের ইংরেজি প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ও কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রামের যুগল কিশোর দাসের মেয়ে। লাশ উদ্ধার করে পুলিশ স্মৃতি রানির অভিভাবকদের খবর দিলে তারা সিলেটে আসেন। ময়না তদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এমসি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মো. তৌফিক এজদানী চৌধুরী জানান, স্মৃতি রানী দাস হোস্টেলের তৃতীয় তলায় থাকতেন। তিনি হোস্টেলের চার তলায় একটি খালি কক্ষে গিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। ধারণা করা হচ্ছে, রাতেই স্মৃতি আত্মহত্যা করেছেন। সকাল ৯টার দিকে অন্যান্য শিক্ষার্থী তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান। পরে পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়। পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

হলের কয়েকজন ছাত্রী জানান, স্মৃতি রানী নতুন ছাত্রী হলের ৩০৭ নম্বর কক্ষে সহপাঠীদের সঙ্গে থাকতেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাত দুইটা পর্যন্ত তাঁকে কক্ষে থাকতে দেখেন সহপাঠীরা। এরপর যে যার মতো ঘুমাতে যান। সকালে ঘুম থেকে উঠে ওই কক্ষের সহপাঠীরা স্মৃতি রানীকে সিটে না পেয়ে দরজা খুলতে যান। কিন্তু দরজা বাইরে থেকে বন্ধ পাওয়া যায়। পার্শ্ববর্তী কক্ষের সহপাঠীদের সহযোগিতায় দরজা খোলা হয়। তখনো স্মৃতিকে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে হলের চতুর্থ তলায় ৪০৩ নম্বর কক্ষে স্মৃতি রানীর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষকে খবর দেন ছাত্রীরা। কর্তৃপক্ষ পরে শাহপরান থানাপুলিশকে বিষয়টি জানায়।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) শাহপরাণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আনিসুর রহমান বলেন, কাপড় ঝুলানোর নাইলনের রশি সিলিং ফ্যানের সাথে বেঁধে গলায় পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন স্মৃতি রানি। আলামত বিবেচনায় প্রাথমিক মনে হচ্ছে এটি আত্মহত্যাই। তবে কী কারণে আহত্মহত্যা- সেটি বলা যাচ্ছে না। মোবাইল ফোন চেক করলে হয়তো এ রহস্য উদঘাটন হবে। তবে স্মৃতি রানীর মোবাইল ফোনটি লক করা। সেটি খোলার চেষ্টা চলছে।

তিনি বলেন, খবর পেয়ে তার পরিবারের লোকজন সিলেটে এসেছেন। ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে। সিলেটেই মরদেহ সৎকারের ব্যবস্থা করছে পরিবার।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.