Main Menu

ইউরোপগামী অভিবাসীদের ৫ যাত্রা ভন্ডুল, আরও আটক দেড় শতাধিক

বিদেশবার্তা২৪ ডেস্ক:
তিউনিশিয়ার এসফ্যাক্স উপকূলে নৌকায় করে অবৈধ অভিবাসীদের ৫টি ভিন্ন ভিন্ন যাত্রা ব্যর্থ করে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনার পর শরণার্থী এবং অভিবাসীদের ৩ টি লাশ এবং ১৫৫ জন আফ্রিকান জাতীয়তার অবৈধ অভিবাসীকে আটক করেছে তিউনিশিয়া পুলিশ। দেশটির রাষ্ট্রীয় নিউজ সংস্থা এ তথ্য জানিয়েছে।

এছাড়া রবিবারের আরেক রিপোর্টে সংবাদ সংস্থাটি জানিয়েছে, তিউনিসিয়ার মাহদিয়া শহরের উপকূলে দুটি পৃথক দুর্ঘটনায় ৭৬ জন অবৈধ অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এর আগে কোর্টের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানায়, চারটি নৌকা ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিতে গিয়ে ডুবে যায়। এরপর ১৭ লাশ উদ্ধার করে কর্তৃপক্ষ।

ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিতে চাওয়া অধিকাংশই অর্ধ সাহারান আফ্রিকান জাতীয়তার। এর মধ্যে মালি সোমালিয়া এবং আইভরি কোস্টের নাগরিকরাও রয়েছেন।

প্রাণঘাতী যাত্রাঃ

তিউনিশিয়া এবং প্রতিবেশি দেশ লিবিয়া, ইউরোপে পৌছার জন্য অভিবাসী এবং শরণার্থীদের কাছে প্রথম পছন্দের দেশে পরিণত হয়েছে। তিউনিশিয়া উপকূল থেকে ইতালীয় দ্বীপ ল্যাম্পপেডুসা মাত্র ১৩০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। তারা এ যাত্রায় মাঝেমধ্যে এমন জলযান ব্যবহার করে যা সাগরে চলার জন্য কোনোভাবেই উপযুক্ত নয়।

রবিবার লিবিয়ান কর্তৃপক্ষ ৫৪২ জনকে আটক করে, যারা ইউরোপ উদ্দেশ্য যাত্রা করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তাদের নৌকার অবস্থা ছিল অত্যান্ত ভয়ানক।

বার্তা সংস্থা এএফপির এক ফটোগ্রাফার জানায়, আটক হওয়া অভিবাসনপ্রত্যাশীদের অধিকাংশই ছিল বাংলাদেশি জাতীয়তার।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন স্বংস্থা জানিয়েছে, গেল বছর ২০২১ সালে ভূমধ্যসাগরে ২ হাজার অভিবাসী ডুবে গেছে না হয় হারিয়ে গেছে। যেখানে ২০২০ এ সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৪০১ জন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.