Main Menu

বাংলাদেশ থেকে এবার হজে যাবেন ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন

নিউজ ডেস্ক:
সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় প্রতিটি দেশের জন্য হজ কোটা প্রকাশ করেছে। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত কোটায় ইন্দোনেশিয়া থেকে সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ হজে যেতে পারবেন বলে জানানো হয়েছে। এরপর রয়েছে পাকিস্তান, ভারত। চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

সৌদি হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এবার ইন্দোনেশিয়া থেকে এক লাখ ৫১ জন হজে যেতে পারবেন। দ্বিতীয় স্থানে থাকা পাকিস্তান থেকে ৮১ হাজার ১৩২ জন, ভারত থেকে ৭৯ হাজার ২৩৭ জন হজে যাবেন। চতুর্থ অবস্থানে থাকা বাংলাদেশ থেকে এবার হজে যাওয়ার সুযোগ পাবেন ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন।

এছাড়া নাইজেরিয়া থেকে ৪৩ হাজার আট জন, তুরস্ক থেকে ৩৭ হাজার ৭৭০ জন এবার হজে যেতে পারবেন।

সাধারণভাবে প্রতিবছর ২৫ লাখের বেশি লোক হজে যান। কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারি হানা দেওয়ার পর ২০১৯ সালে বিদেশ থেকে হজে যেতে কাউকে অনুমতি দেয়নি সৌদি আরব।
ফলে দুই বছর শুধু সৌদি আরবের ৬০ হাজার মানুষের অংশগ্রহণে সীমিত পরিসরে পালিত হয় বিশ্বের মুসলমানদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বার্ষিক এই সম্মেলন।

দুই বছর বন্ধ পর বিদেশিদের জন্য হজের দরজা খুলে দেওয়া হলেও সংখ্যা কমিয়ে আনা হয়। গত ১০ এপ্রিল সৌদি আরব ঘোষণা করেছিল যে তারা আসন্ন হজ মৌসুমে দেশি ও বিদেশি মিলিয়ে মোট ১০ লাখ লোককে হজ করার সুযোগ দেবে। তবে কোভিড নেগেটিভ সনদ নিয়ে যেতে হবে, আর স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানতে হবে।

আরব নিউজ জানিয়েছে, যাদের বয়স ৬৫ বছরের নিচে, শুধু তারাই এবার হজ পালন করতে পারবে। তবে অবশ্যই দুই ডোজ কোভিড টিকা নেওয়া থাকতে হবে। ৭ বা ৮ জুলাই এবারের হজ হবে। চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করবে হজের চূড়ান্ত তারিখ।

 






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.