Main Menu

শাহজালালে মে মাস থেকে চালু হবে রাতের ফ্লাইট

নিউজ ডেস্ক:
ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তৃতীয় টার্মিনালে হাই স্পিড ট্যাক্সিওয়ে নির্মাণের জন্য গত (১০ ডিসেম্বর) থেকে রাতের ফ্লাইট বন্ধ আছে। কাজ শেষ করতে আগামী (১০ জুন) পর্যন্ত ফ্লাইট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছিল বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। তবে নির্ধারিত সময়ের আগেই কাজ শেষ হয়ে যাওয়ায় এক মাস আগেই মে মাস থেকে আবারো চালু হচ্ছে রাতের ফ্লাইট।

বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান বলেন, শাহজালালে তৃতীয় টার্মিনালের নির্মাণকাজ সময়সূচি অনুযায়ীই হচ্ছে। হাইস্পিড কানেক্টিং ট্যাক্সি ট্র্যাক দ্রুততার সঙ্গে সম্পন্ন হচ্ছে। তৃতীয় টার্মিনাল উদ্বোধন হলে এই বিমানবন্দরে অনেক উড়োজাহাজ আসবে রানওয়েতে।

তিনি আরও বলেন, ‘বিমানবন্দরে রানওয়ে একটি। তাই উড়োজাহাজ রানওয়েতে থাকার স্থায়িত্ব যাতে কম হয়, দ্রুততার সঙ্গে যেন তা রানওয়ে থেকে বেরিয়ে আসতে পারে, এ জন্য দুটি অতিরিক্ত হাইস্পিড ট্যাক্সিওয়ের নির্মাণকাজ হাতে নেওয়া হয়েছে।’

বেবিচক ২০২১ সালের ১০ নভেম্বর এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ওই বছরের ১০ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের জুন মাস পর্যন্ত প্রতিদিন রাত ১২টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত ৮ ঘণ্টা শাহজালাল বিমানবন্দরে উড়োজাহাজ চলাচল বন্ধ থাকবে। বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণকাজের অংশ হিসেবে হাইস্পিড কানেক্টিং ট্যাক্সিওয়ে নির্মাণ ও লাইটিংয়ের কাজের জন্য বেবিচক এ সিদ্ধান্ত নেয়।

গত ১০ ডিসেম্বর থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়। রাতে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ হওয়ায় ফ্লাইট সময়সূচি (শিডিউল) পরিবর্তন করে দিনের বেলাতে আনা হয়। ফলে সেদিন থেকেই বিমানবন্দরে যাত্রী ব্যবস্থাপনায় চাপ বাড়ে। মালামাল নেওয়ার ক্ষেত্রে ট্রলিসংকট, চেক ইন কাউন্টার, ইমিগ্রেশন, বোর্ডিং ব্রিজসহ বিমানবন্দরের প্রতিটি ক্ষেত্রে যাত্রীর চাপ বাড়ে। এ সময় যাত্রীদের ভোগান্তি ও হয়রানিতে পড়তে হয়।

বেবিচক চেয়ারম্যান বলেন, ‘পরিকল্পনা ছিল জুনের মধ্যে এ কাজ শেষ করার। কিন্তু কাজটি এই মাসে শেষ করতে পারব। এপ্রিলের শেষে বা মে মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে কাজ শেষ হয়ে যাবে এবং রাতেও বিমানবন্দরের রানওয়ে ব্যবহার করতে পারব।’






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.