Main Menu

লন্ডনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শিক্ষিকা হত্যা: একজনের যাবজ্জীবন

নিউজ ডেস্ক:
যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশি স্কুলশিক্ষিকা সাবিনা নেসা (২৮) খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন লন্ডনের একটি আদালত। রায়ে বলা হয়েছে, সাজাপ্রাপ্ত ওই ব্যক্তিকে কমপক্ষে ৩৬ বছরের সাজা ভোগ করতে হবে। শুক্রবার লন্ডনের কেন্দ্রীয় অপরাধ আদালত (ওল্ড বেইলি) এই রায় ঘোষণা করেন।

সাবিনা নেসার পৈতৃক বাড়ি সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলায়। যুক্তরাজ্যের বেডফোর্ডশায়ারের একটি ছোট্ট শহরে স্যান্ডিতে থাকেন তার পরিবার। বাবা আবদুর রউফ কাজ করেন স্যান্ডির একটি রেস্টুরেন্টে।

সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম কোচি সেলামাজ (৩৬)। গত বছরের সেপ্টেম্বরে দক্ষিণ-পূর্ব লন্ডনের কিডব্রুক এলাকার একটি পার্কে সাবিনা নেসাকে হত্যা করেন তিনি। নিহত সাবিনা নেসা দক্ষিণ-পূর্ব লন্ডনের লিউশামের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে আটটার দিকে সাবিনা নেসা গ্রিনউইচের বাসা থেকে বের হয়েছিলেন। পাঁচ মিনিট দূরত্বের পেগলার স্কয়ারে এক বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার সময় হামলার শিকার হন তিনি। পরদিন কাছের কিডব্রুক এলাকার একটি পার্কের ভেতরে তাঁর লাশ পাওয়া যায়।

ওই ঘটনার সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, অজ্ঞান হওয়ার আগপর্যন্ত সাবিনা নেসার মাথায় আঘাত করছেন কোচি সেলামাজ। নেসা অজ্ঞান হয়ে গেলে তাঁকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টাও করেন। এরপর সাবিনা নেসাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন তিনি।

কোচি সেলামাজ পূর্ব সাসেক্সের ইস্টবোর্নের একটি গ্যারেজে কাজ করতেন। গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর তিনি লন্ডনে যান। তিনি আদালতের কাছে স্বীকার করেন, স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর তার মনে নারীদের প্রতি আক্রোশ তৈরি হয়।

সাবিনা নেসা হত্যাকাণ্ডের কয়েক দিনের মধ্যেই কোচি সেলামাজকে গ্রেপ্তার করা হয়। গত ফেব্রুয়ারিতে তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করেন আদালত। শুক্রবার রায় ঘোষণার দিন আদালতে উপস্থিত হতে অস্বীকৃতি জানান তিনি। তার অনুপস্থিতেই আদালত এই রায় ঘোষণা করেন।

বিচারক সুইনি ‘বর্বর’ এই হামলাকে যৌন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে আখ্যায়িত করেছেন। বিচারক বলেন, সাবিনা নেসা ‘সম্পূর্ণ নিরাপরাধ একজন মানুষ। তিনি একটি ভয়ংকর হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন, যার জন্য সম্পূর্ণভাবে আসামি দায়ী’।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.