Main Menu

পেনসিলভানিয়ার বাংলাদেশি বন্ধু সংগঠনগুলোর মিলন মেলা

নিউজ ডেস্ক:
যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যের বাংলাদেশি সামাজিক ও সংস্কৃতিক বন্ধু সংগঠনসমূহের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠান রবিবার পেনসিলভানিয়া ফিলাডেলফিয়ার স্হানীয় একটি হলে সংগঠিত হয়। পেনসিলভেনিয়ায় অবস্থিত প্রিয় সংগঠনসমূহের নেতৃবৃন্দদ্বয় অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেন। প্রচারে ছিলেন বাংলাদেশী আমেরিকান কমিউনিটি ফোরাম অব পেনসিলভেনিয়া।

পেনসিলভানিয়ার ইতিহাসে স্বাধীনতা মাসের সকল সংগঠন সমূহের শুভেচ্ছা বিনিময়ের সভাটি আমাদের সকলের নিকট স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানটিতে মর্ডারেটেরের দ্বায়িত্ব পালন করেন ডা. ইবরুল চৌধুরী এবং অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন কামরুল হাসান। কামরুল হাসানের সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, অংশগ্রহনকারী পেনসিলভেনিয়ার ২১টি বন্ধু সংগঠনের সভাপতি/ সাধারন সম্পাদক, পেনসিলভেনিয়ায় বসবাসকারী বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, আমেরিকার মূলধারার রাজনীতির নির্বাচিত প্রতিনিধি এবং সাংবাদিকবৃন্দ।

 

বাংলাদেশ ও আমেরিকার জাতীয় সংঙ্গীত পরিবেশনার মধ্যামে অনুষ্ঠানটি শুরু করা হয়। শুরুতেই কামরুল হাসান, আগত অতিথিদের শুভেচ্ছা জানিয়ে অনুষ্ঠানটির উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য নিয়ে আলোচনা করেন এবং এর গুরুত্ব সবার মাঝে তুলে ধরেন। পরবর্তীতে মডারেটর ডা. ইবরুল চৌধুরী অনুষ্ঠানটির সার্বিক দিক নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। আয়োজকের পক্ষ থেকে মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম আরিফ তার লিখিত বক্তব্যে শুভেচ্ছা বিমিময়ের কারণ ও লক্ষ্য সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন।

সভায় উপস্থিত নেতৃবৃন্দ প্রত্যেকেই তাদের পরিচয় দিয়ে পরামর্শমূলক মতামত দেওয়ার মাধ্যমে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন।

এদের মধ্যে ছিলেন, প্রফেসর ডা. জিয়াউদ্দিন আহম্মেদ, আবু আমিন রহমান, শেলী রহমান, ড. নিনা আহম্মেদ, ডা. ফাতেমা আহম্মেদ, ফারহানা আফরোজ, জোহরা খাতুন কলি ও নির্বাচিত মেয়র এবং কাউন্সিলম্যানবৃন্দ এবং আরো অনেকে।

 

প্রাণবন্ত এ আলোচনায় পেলসিলভেনিয়ার বাংলাদেশী সংগঠনসমূহ প্রতি বছর নিজেদের মধ্যে শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ধারাবাহিকতা বজায় রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। এর মাধ্যমে পেনসিলভানিয়ার সকল সংগঠন সমূহ ভবিষ্যতে একটি ছাতার নীচে আসতে পারে এবং নিজেদের মাঝে সম্পর্ক স্থাপন করাসহ ভবিষ্যতে যেকোন দূর্যোগসহ যথাসাধ্য জাতীয়/ আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠান পালনের চেষ্টা অব্যাহত রাখতে পারে। এছাড়াও আরোও কিছু বিষয়ে সবাই ঐকমত্য পোষণ করেন যে, প্রাথমিক পর্যায়ে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ ও পরামর্শের জন্য কয়েকটি চ্যাট রুম করা হবে।

এর মধ্যে প্রথম চ্যাট রুমটিতে থাকবেন সংগঠন সমূহের নেতৃবৃন্দসহ সম্মানিত দিক নির্দেশনা কারী ও শুভাকাঙ্খী এবং আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ।

আর দ্বিতীয় চ্যাট রুমটিতে থাকবেন পেনসিলভানিয়ার সংগঠন সমূহের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ। আর সর্বশেষ মানে তৃতীয় চ্যাট রুমটিতে থাকবেন দ্বায়িত্বে থাকা সংগঠনে নেতৃবৃন্দ এবং তাদের সহযোগিতা করার দলটি।

সবশেষে সভার সমাপনী বক্তব্যে ডা. ইবরুল চৌধুরী আগত অতিথিদের উদ্দেশ্যে বলেন যে, আপনারা আজকের অনুষ্ঠানে উপস্হিত থেকে আমাদেরকে অনেক সাহস, সহযোগিতা এবং উৎসাহ জুগিয়েছেন। আশা করি ভবিষ্যতেও সবাই এভাবে একে অপরকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবেন এবং সবাই সবাইকে পাশে পাবেন। শেষে আবারও সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি টানেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.