Main Menu

প্রবাসীর হারানো ১০ লাখ টাকা উদ্ধার করে ফেরত দিল পুলিশ

নিউজ ডেস্ক:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা পুলিশের তৎপরতায় হারানো ১০ লাখ ৩৫ হাজার টাকা ফেরত পেয়েছেন সৌদি প্রবাসী লোকমান মিয়া (২৮)। টাকা হারিয়ে ফেলায় নিজ কর্মস্থলে ফেরা অনিশ্চত হয়ে পড়েছিল তার। অবশেষে টাকা ফেরত পেয়ে খুশি তিনি।

জানা গেছে, সরাইল উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের জয়দরকান্দি গ্রামের বাসিন্দা লোকমান চার বছর ধরে বিদেশে থাকেন। তিনি মূলত কয়েক মাস আগে সৌদি আরব থেকে ছুটিতে এসে ছোট ভাই সুমন মিয়া, ভগ্নিপতি শাহজাহান মিয়া, চাচাতো ভাই সাইফুল ইসলাম ও ভাতিজা মমিন মিয়াকে সৌদি আরবে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করেন।

গতকাল শনিবার দুপুরে তিনি ওই ৪ জনের ভিসার জন্য ১০ লাখ ৩৫ হাজার টাকা নিয়ে নরসিংদী হয়ে ঢাকা যাচ্ছিলেন। নরসিংদীতে ভিসা প্রদানকারী ব্যক্তির বাড়ি ওই টাকা পৌঁছে দেওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু লোকমান সরাইল-নাসিরনগর সড়কের ধরন্তী ঘাট এলাকায় এসে ভুল করে অটোরিকশায় টাকা ফেলে যান। পরে গাড়ি পরিবর্তনের পর মনে পড়ে টাকার কথা। কিন্তু অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ওই অটোরিকশার সন্ধান না পেয়ে বিকেলে পুলিশকে অবহিত করেন।

অভিযোগ পেয়ে সরাইল থানার উপপরিদর্শক হোসেনে মোবারক সন্ধ্যায় অটোরিকশার চালক বাবুল মিয়াকে আটক করে। শুরুর দিকে বাবুল টাকার কথা অস্বীকার করলেও পরে রাত ১০টার দিকে স্বীকার করেন। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ পরে শনিবার রাত ১১টার দিকে টাকাগুলো উদ্ধার করে। পরে পুলিশ উদ্ধার করা টাকা লোকমানের কাছে হস্তান্তর করেন।

টাকা পেয়ে লোকমান গণমাধ্যমকে বলেন, গতকাল সৌদিতে ফেরার কথা ছিলো, ভুলের কারণে যেতে পারলাম না। তাতে লাখ টাকার ক্ষতি হলেও পুলিশের সহায়তায় বড় ধরনের ক্ষতি থেকে রক্ষা পেয়েছি।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন জানান, ‘টাকা হারানোর বিষয়টি অবহিত হয়ে, অনেক কৌশল খাঁটিয়ে অটোরিকশাটি ও চালককে চিহ্নিত করি। চালক বাবুলকে আটকের পর পুরো টাকা উদ্ধার করে প্রকৃত মালিককে ফেরত দিতে পেরেছি।’






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.