Main Menu

তিন লাখ নতুন বিদেশী কর্মীকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত মালয়েশিয়া

নিউজ ডেস্ক:
তিন লাখ নতুন কর্মীকে স্বাগত জানাতে মালয়েশিয়া প্রস্তুত উল্লেখ করে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় (বিশেষ কাজ) বিভাগের মন্ত্রী আবদুল লতিফ আহমেদ জানিয়েছেন, আগামী কয়েক মাসে পর্যায়ক্রমে আরও বেশি শ্রমিক নেওয়া হবে। বিদেশ থেকে আসা অভিবাসী শ্রমিকদের নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য নিশ্চিত করার কথাও জানিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (২২ মার্চ) সমঝোতা স্মারক সইয়ের পরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মন্ত্রী বলেন, আমরা শ্রমিকদের প্রতিশ্রুতিকে স্বাগত জানাই। নিশ্চিত করতে চাই কোয়ারেন্টাইন প্রক্রিয়া ও পরীক্ষাগুলো যেন নিয়ন্ত্রিত হয়। এছাড়া বিভিন্ন দেশ থেকে আসা অভিবাসী শ্রমিকদের দেশব্যাপী ৪০০টি হোটেলে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। শ্রমিকদের কল্যাণ ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে সরকারের একটি সংগঠিত স্ক্রিনিং ব্যবস্থা থাকা অপরিহার্য। যাতে করোনা পরীক্ষা ও কর্মীদের সাতদিনের কোয়ারেন্টাইনে অন্তর্ভুক্ত করা যায়।

কোভিড পরবর্তী দেশের অর্থনীতিতে গতি আনতে গত বছরের ১০ ডিসেম্বর বিভিন্ন খাতে অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়োগের বিষয়ে সম্মত হয় মালয়েশিয়ার মন্ত্রিসভা। পরে ১৯ ডিসেম্বর মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগের বিষয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক সই করেন মানবসম্পদমন্ত্রী এম সারাভানান, যা ২০২৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত পাঁচ বছরের জন্য কার্যকর হবে।

এদিকে ১৬ মার্চ পর্যন্ত অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়োগের জন্য বিভিন্ন সেক্টরে নিয়োগকর্তাদের কাছ থেকে মোট তিন লাখ ১৩ হাজার ১৪টি আবেদন নেওয়া হয়েছে। এগুলো পর্যায়ক্রমে প্রক্রিয়া করা হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৬ মার্চ পর্যন্ত প্রাপ্ত আবেদনগুলোর মধ্যে উৎপাদন খাতে এক লাখ ৯৩ হাজার ৩৪৬ জন, পরিষেবা খাতে ৪৮ হাজার ১১৯, বৃক্ষরোপণ খাতে ৩৬ হাজার ৯৫০, নির্মাণ খাতে ২৭ হাজার ৩৩১, কৃষিখাতে সাত হাজার ২৪৮ এবং খনিজ ও খনন খাতে ২০ জন।

এদিকে জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়ায় শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি বাড়িয়েছে মালয়েশিয়া সরকার। এখন থেকে মালয়েশিয়ায় দেড় হাজার রিঙ্গিত ন্যূনতম মজুরি নীতি বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী দাতুক সেরি ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব। আগামী পহেলা মে থেকেই নতুন মজুরি নীতি কার্যকর হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে বিদেশি কর্মী নিয়োগের জন্য আবেদন করার ক্ষেত্রে সি ক্যাটাগরির অধীনে লাইসেন্সপ্রাপ্ত ৫০১টি কর্মসংস্থান সংস্থা সেবা প্রদান করতে পারবে। মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী দাতুক সেরি এম সারাভানান এ তথ্য জানিয়েছেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.