Main Menu

জার্মানিতে সরকারি চাকরিতে আরও বেশি অভিবাসী নিয়োগের আহ্বান

নিউজ ডেস্ক:
জার্মানির কেন্দ্রিয় সরকারের মাইগ্রেশন, রিফিউজি ও ইন্টিগ্রেশন কমিশনার রীম আলাবালি-রাডোভান বলেছেন, ‘‘জার্মানিতে পুলিশ, শিক্ষক এবং প্রশাসনিক বিভিন্ন স্তরে অধিক পরিমাণে অভিবাসী এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের জায়গা দেওয়া উচিত৷’’

এদিকে সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, দেশটিতে এখনো ইনস্টিটিউশনাল রেসিজম, অর্থাৎ প্রাতিষ্ঠানিক বর্ণবাদ বিদ্যমান আছে৷

রীম আলাবালি-রাডোভান বলেন, ‘‘অভিবাসনের বিষয়ে ভ্রান্ত ধারণা দূর করতে আমাদের আরো বেশি বৈচিত্র্য দরকার৷ এর মাধ্যমে কর্তৃপক্ষও অভিবাসীদের প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে আরো সচেতন হবে৷’’

জার্মানির রাইনিশে পোস্ট পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, জার্মানির মোট জনসংখ্যার এক চতুর্থাংশই অভিবাসী পরিবার থেকে আসা৷ আর তাই পুলিশ, স্কুল এবং জার্মানির বিভিন্ন রাজ্যের পৌরসভাগুলোতে চাকরির বেলায় এই বিষয়টির প্রতিফলন থাকা উচিত বলে মনে করেন তিনি৷

তবে জার্মানির স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী বলছেন ভিন্ন কথা৷ তার মতে, অভিবাসীদের চাকরিতে নিয়োগ করার বিষয়ে আলাদা কোনো কোটাব্যবস্থা রাখার বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন৷

এদিকে এক গবেষণা বলছে, জার্মান কর্তৃপক্ষের মধ্যে এখনো বর্ণবাদী আচরণ দেখা যায়৷ আর এর ফলে অভিবাসী এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধার বেলায় নেতিবাচক পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়৷ সুযোগ-সুবিধার মধ্যে চাকরি পাওয়া এবং স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার বিষয়মূহও রয়েছে৷

বুধবার প্রকাশিত জার্মানির ডুইসবুর্গ এসেন বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত এই গবেষনায় বলা হয়, জার্মান কর্তৃপক্ষের মধ্যে অভিবাসীদের সাথে আচরণের সময় গৎবাঁধা এবং সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার মতো মানসিকতা বিদ্যমান রযেছে৷

দেশটির বিভিন্ন রাজ্যের সরকারি কর্মকর্তা, যেমন পুলিশ, জব সেন্টারের কর্মকর্তা এবং স্বাস্থ্যবিভাগের কর্মকর্তাদের সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে এমন উপসংহারে আসে গবেষণাটি৷

গবেষণার ব্যাখ্যায় বলা হয়, কোনো ব্যক্তির কর্মকাণ্ডের জন্য সুনির্দিষ্ট ওই ব্যক্তির কার্যক্রমকে চিহ্নিত করার পরিবর্তে পুলিশ তাদেরকে নানাভাবে তাদের ধর্ম (মুসলিম), জাতীয়তা (লেবানিজ) ইত্যাদি বিষয় বিবেচনায় নিয়ে থাকে৷

তাছাড়া জার্মান বলতে পারেন না এমন অভিবাসীদের সাহায্য করার বিষয়ে পুলিশের যথেষ্ট সামর্থ্য নেই বলে গবেষণায় উঠে এসেছে ৷






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.