Main Menu

তালাবদ্ধ ফার্মেসির ভেতর মিললো প্রবাসীর স্ত্রীর ৬ টুকরো লাশ!

নিউজ ডেস্ক:
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌরশহরের মির্জা আব্দুল মতিন মার্কেটের অভি মেডিকেল হল নামের তালাবদ্ধ ফার্মেসী থেকে বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে শাহনাজ পারভিন জোস্না (৩৫) নামের তিন সন্তানের জননীর ছয় খণ্ড লাশ উদ্ধার করেছে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ।

জানা যায়, বুধবার বিকেলে জগন্নাথপুর পৌরসভার পিছনের আবাসিক এলাকার দুতলা বাসা থেকে শাহনাজ পারভিন বেরিয়ে যাওয়ায় পর থেকে অনেক খোঁজাখুঁজি করে তাঁকে পাওয়া যায়নি।

 

নিহত শাহনাজ পারভিনের ছেলে উদয় জানান, গতকাল (বুধবার) সকালে অভি মেডিকেল হলের মালিক জিতেন্দ্র গোপ আমাদের বাসায় আসেন। এসময় তিনি আমার আম্মুর পেশার মাপেন। পরে তিনি আম্মুকে দোকানে যাওয়ার কথা বলে চলে যান। পরে ঔষুধ আনতে আম্মু তার দোকানে যান। এরপরে আর আর আম্মু বাড়িতে ফিরে আসেননি। আম্মুর মোবাইলে ফোন দিলেও ধরেননি। বিষয়টি থানাপুলিশকে জানাই। পরে পুলিশ জিতেন্দ্র গোপের ফার্মেসি থেকে আম্মুর লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে অভি মেডিকেলের তালা ভেঙ্গে প্রবেশ করলে দেখতে পাওয়া যায়, মহিলার দেহটি ছয় খণ্ড করা। দুই হাত ও পা আলাদা করে কাটা, মাথা এক খণ্ড, কোমর থেকে বুক পর্যন্ত আরেক খণ্ড। পারভিন নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে অভি মেডিকেল হলের মালিক জিতেন্দ্র তার পরিবার নিয়ে জগন্নাথপুর থেকে পালিয়ে গেছে।

জগন্নাথপুর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, ওই মহিলার খণ্ডিত লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে এবং মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

স্থানীয়রা জানান, পারভিনের স্বামী সুরুক মিয়া সৌদি আরব প্রবাসী। তার গ্রামের বাড়ি উপজেলার নারিকেল তলা গ্রামে। তারা দীর্ঘদিন ধরে জগন্নাথপুর পৌরসভার পিছনের আবাসিক এলাকায় নিজস্ব বাসায় বসবাস করে আসছিলেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.