Main Menu

কর্ণাটকের আরও একটি কলেজে হিজাব পরায় বাধা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে হিজাব বিতর্ক যেন থামছেই না। হিজাবকাণ্ডের শুনানি কর্ণাটক হাইকোর্টে বুধবারও (১৬ ফেব্রুয়ারি) চলবে বলে জানা গেছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো থেকে। তবে এবার আরও একটি কলেজে হিজাব পরে শিক্ষার্থীদের প্রবেশে বাধা দেওয়া হচ্ছে বলে এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সরকারি পি ইউ কলেজটি কর্ণাটকের উত্তরে অবস্থিত। এর আগে সেখানে হিজাব পরে গেলে বাধা দেওয়া হতো না শিক্ষার্থীদের। কিন্তু বুধবার শিক্ষার্থীদের কলেজে হিজাব পরে প্রবেশে বাধা দেওয়া হয়।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ কলেজ কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে তাদের আগে তথ্য নিশ্চিত করেনি যে হিজাব বা বোরকা পরে কলেজে যাওয়া যাবে না। যদিও কলেজ কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা শুধু কর্ণাটক হাইকোর্টের অন্তর্বর্তী আদেশ পালন করছে।

গত মঙ্গলবার (৮ ফেব্রুয়ারি) থেকে মাণ্ড্যর প্রি-ইউনিভার্সিটি কলেজে উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের সঙ্গে মুসকান খানের মুখোমুখি হওয়ার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর আলোচনার ঝড় ওঠে। হিজাবের পক্ষে বিক্ষোভ হয়েছে দেশটির একাধিক রাজ্যে। বিষয়টি গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত।

শিক্ষার্থীদের আপাতত হিজাব বা যেকোনো ধরনের ধর্মীয় পোশাক পরা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন কর্ণাটক হাইকোর্ট। যতদিন এ বিষয়ে মামলা চলছে, ততদিন ধর্মীয় পোশাক পরে শিক্ষার্থীদের স্কুল-কলেজে যাওয়া থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।

গত সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আবারও এ বিষয়ে শুনানি শুরু হয় আদালতে। এরপর মঙ্গলবারও চলে শুনানি। স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে রাজ্যের প্রধান বিচারপতি ঋতু রাজ অবস্থি, বিচারপতি কৃষ্ণ এস দিক্ষিত ও জেএম খাজির তিন সদস্যের বেঞ্চে এ শুনানি শুরু হয়। এরপর শুনানির দিন আবার ১৬ ফেব্রুয়ারি ধার্য করা হয়। সূত্র: এনডিটিভি






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published.